kalchitro
Bongosoft Ltd.
ঢাকা মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই, ২০২২, ২১ আষাঢ় ১৪২৯

সিসিমপুরের নতুন সিজনের শুটিং শুরু


কালচিত্র | বিনোদন ডেস্ক প্রকাশিত: জুন ১৩, ২০২২, ১০:৫৭ পিএম সিসিমপুরের নতুন সিজনের শুটিং শুরু
সিসিমপুর ১২৩-এর একটি দৃশ্য ● সংগৃহীত

শুরু হয়েছে শিশুদের প্রিয় অনুষ্ঠান সিসিমপুরের নতুন সিজনের শুটিং।

রোববার (১২ জুন) রাজধানীর এফডিসিতে সিজন ১৫-এর শুটিং শুরু হয়। এবারের সিজনে নতুন ২৬টি পর্ব তৈরি করবে সিসিমপুরের নির্মাতা সিসেমি ওয়ার্কশপ বাংলাদেশ।

নতুন সিজনের বিভিন্ন পর্বে হালুম টুকটুকি, ইকরি ও শিকু ছোট্ট বন্ধুদের জন্য মজার মজার নতুন সব গল্প নিয়ে হাজির হবে।

ওদের সঙ্গে থাকবে আশা, গুণি ময়রাসহ সিসিমপুরের নিয়মিত অন্য চরিত্ররা। এর পাশাপাশি এবারের সিজনে সিসিমপুরের বন্ধুদের জন্য থাকছে চমক। তা হলো- এবারের সিজনে সিসিমপুরে যুক্ত হচ্ছে নতুন একজন বন্ধু।  

সব শিশুর জন্য সমান সুযোগ ও অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে সাজানো হয়েছে নতুন সিজনের পর্বগুলো। থাকবে ভাষা, বর্ণ, গণিত, অটিজম আর সামাজিক ও দলীয় সম্পর্ককে গুরুত্ব দিয়ে সচেতনতামূলক নানা  সেগমেন্ট। আবেগ নিয়ন্ত্রণ ও নিজের যত্ন নেয়া, কল্পনাশক্তি এবং প্রতিবন্ধকতা ও লিঙ্গবৈষম্য জয় করার মতো বিষয়গুলো উঠে আসবে সিজন ১৫-এর নানা পর্বে।

এফডিসিতে নতুন সিজনের শুটিং শুরুর প্রাক্কালে সিসিমপুরের জনপ্রিয় চরিত্রগুলো ছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন সিসেমি ওয়ার্কশপ বাংলাদেশের মূল প্রতিষ্ঠান সিসেমি ওয়ারর্কশপের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট জন জেপসেন, ভাইস প্রেসিডেন্ট ড্যানি লেবিন, পরিচালক টেরেসা ওলভারটন, ইউএসএআইডির শিক্ষা অফিস পরিচালক সোনিয়া রেনল্ডস কুপার,  প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের পরিচালক (প্রশিক্ষণ) ড. উত্তম কুমার দাশ, জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের (এনসিটিবি) সদস্য অধ্যাপক ড. এ কে এম রিয়াজুল হাসান, ইউএসএআইডির শিক্ষা উপদেষ্টা সুদেব কুমার বিশ্বাস এবং সিসেমি ওয়ার্কশপ বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ শাহ আলমসহ কার্যক্রম সংশ্লিষ্ট আরও অনেকে।

ইউএসএআইডির আর্থিক সহযোগিতায় নির্মিত ‘সিসিমপুর’ ২০০৫ সাল থেকে প্রাক-প্রাথমিক শিশু বিকাশ কার্যক্রমের আওতায় ‘সর্বত্র শিশুরা হয়ে উঠুক আরও সম্পন্ন, আরও সবল এবং আরও সদয়’ এই লক্ষ্য নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। সিসিমপুর অনুষ্ঠানটি সম্প্রচারে সহায়তা করছে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং বিদ্যালয়ভিত্তিক কার্যক্রমে সহায়তা করছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।
 

Side banner