kalchitro
Bongosoft Ltd.
ঢাকা বুধবার, ১৯ জুন, ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১

লাফিং গ্যাস নিষিদ্ধ করছে নেদারল্যান্ডস


কালচিত্র | কালচিত্র প্রতিবেদক প্রকাশিত: নভেম্বর ১৬, ২০২২, ১২:৩১ এএম লাফিং গ্যাস নিষিদ্ধ করছে নেদারল্যান্ডস

লাফিং গ্যাস হিসেবে পরিচিত নাইট্রাস অক্সাইড গ্যাসের ব্যবহার নিষিদ্ধ করতে যাচ্ছে নেদারল্যান্ডস সরকার। তরুণদের স্বাস্থ্য ঝুঁকি বিবেচনায় এ সিদ্ধান্ত নেয়ার কথা জানিয়েছে তারা। 

আসছে জানুয়ারি থেকে লাফিং গ্যাস ক্রয়-বিক্রয় ও বহন করা নিষিদ্ধ হবে দেশটিতে। 

ডাচ সরকার আশা করছে, এই মাদকের কারণে যেসব সড়ক দুর্ঘটনার ঘটনা ঘটে, নিষেধাজ্ঞার ফলে সেগুলোও কমে আসবে। 

সড়ক নিরাপত্তা পর্যবেক্ষক সংস্থা টিম এলার্টের তথ্য অনুযায়ী, নেদারল্যান্ডসে গত তিন বছরে প্রায় এক হাজার ৮০০ সড়ক দুর্ঘটনায় নাইট্রাস অক্সাইড ভূমিকা পালন করেছে। 

টিম এলার্টের গবেষক মার্টজে অস্টেরিঙ্ক বলেন, 'এর মানে দৈনিক প্রায় দুটি দুর্ঘটনা, যে তথ্য আমাদের বিস্মিত করেছে'। 

আইনত বৈধ এই মাদকটি গত কয়েক বছরে নেদারল্যান্ডসে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। বিভিন্ন ক্লাব ও ফেস্টিভ্যালে অংশ নেয়া তরুণদের মাঝে এটি বেশ জনপ্রিয়। এমডিএমএ বা কেটামিনের মতো মাদকের সাথে মিশিয়েও এটি ব্যবহার করা হয়। 

সাধারণত এই গ্যাসটি ছোট ছোট ধাতব ক্যানে বিক্রি করা হয়, যা পরে বেলুনে ভরে নিঃশ্বাসের সাথে ভেতরে টেনে নেয়া হয়। 

ট্রিমবস ইন্সটিটিউটের একটি গবেষণা বলছে, নেদারল্যান্ডসে বিভিন্ন পার্টিতে অংশ নেয়াদের মধ্যে ৩৭ শতাংশেরও বেশি নিয়মিত এই মাদক গ্রহণ করেন। 

তবে শরীর ও মনের ওপর এই মাদকের প্রভাব নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। দীর্ঘদিন এটি সেবনের ফলে স্নায়ুতন্ত্রের ক্ষতি ও পক্ষাঘাত হতে পারে। 

নেদারল্যান্ডসের স্বাস্থ্য, কল্যাণ ও ক্রীড়া বিষয়ক মন্ত্রী মার্টেন ফন ওইজেন বলেন, নাইট্রাস অক্সাইড মাদক হিসেবে ব্যবহার করলে তা ব্যাপক স্বাস্থ্য ঝুঁকির কারণ হতে পারে। 

নাইট্রাস অক্সাইডের ব্যবহার নিয়ে উদ্বেগ শুধু নেদারল্যান্ডসেই সীমাবদ্ধ নয়। ইংল্যান্ডে ১৬ থেকে ২৪ বছর বয়সীদের মধ্যে এটি গাঁজার পর সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত মাদকদ্রব্য। 

এটির ব্যবহার বন্ধ করতে গত মাসে যুক্তরাজ্যের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতি আহবান জানানো হয়। হুইপড ক্রিম তৈরি ও চিকিৎসাক্ষেত্রে চেতনানাশক হিসেবে এটি ব্যবহৃত হয় বলে এর কেনা-বেচা বৈধ। 
 

Side banner