kalchitro
Bongosoft Ltd.
ঢাকা মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই, ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১

দীপশিখা


কালচিত্র | মিজানুর রঙহমান মিজু প্রকাশিত: জুলাই ১০, ২০২৪, ০৭:৩৫ পিএম দীপশিখা

দীপশিখা

মিজানুর রঙহমান মিজু

 

রাতের বাস বা ট্রেন জার্নিতে অদ্ভুত এক অনুভূতি হয় মনে। শৈশবের একরাশ স্মৃতি এসে মনকে আচ্ছন্ন করে দেয়। খেলার সাথী, সহপাঠী, বন্ধুবান্ধব --- সবার ছবি সেলুলয়েডের ফিতার মতো একের পর এক চোখের সামনে ভেসে ওঠে। জানালা দিয়ে বাইরে তাকাই। অন্ধকার, সুষুপ্তিমগ্ন পৃথিবী। দূরে কোনো গৃহস্থঘরে মিটিমিট করে আলো জ্বলছে। আচ্ছা, আলো-জ্বলা ঐ বাড়িটি কাদের? কার ঘরে আলো জ্বলে এতো রাতে! ওটা কী মায়াদের বাড়ি? আচ্ছা, মায়া এখন কী করছে? ঘুমিয়ে আছে নিশ্চয়ই। ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে ও কী এখন স্বপ্ন দেখছে? ঐ যে সে বলতো তার বর হবে ডালিম কুমারের মতো রাজপুত্তুর! আর যদি জেগে থাকে, তবে কার কথা ভাবছে ও? ঐ যে গাঁয়ের পথ ধরে বেতবাড়িয়া খালের ওপর দিয়ে বাঁশের সাঁকো পার হয়ে আমরা স্কুলে যেতাম--- ওর কী মনে আছে? দূর! ওসব কী আর মনে থাকে! কত্তো কাল আগের কথা! ব্রীজের ওপর দিয়ে যাই, নীচে একটা নদী। নদী দেখলেই কেনো যেনো ধলেশ্বরী নদীটার কথা মনে পড়ে যায়। হঠাৎই মৃদুস্বরে গান বেজে ওঠে ---" আমি তোমার বিরহে রহিব বিলীন, তোমাতে করিবো বাস"....! আবেগসিক্ত উদ্বেলিত মনে ততক্ষণে স্মৃতি-বিস্মৃতির নিরন্তর দাপাদাপি। --- " এ গান যেখানে সত্য অনন্ত গোধূলিলগ্নে সেইখানে বহি চলে ধলেশ্বরী, তীরে তমালের ছায়া"..... আর আঙিনাতে যে অপেক্ষা করে থাকে তার নাম দীপশিখা মায়া!

Side banner