kalchitro
Bongosoft Ltd.
ঢাকা মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই, ২০২২, ২১ আষাঢ় ১৪২৯

তিন জেলায় পানিবন্দী লাখো মানুষ


কালচিত্র | কালচিত্র ডেস্ক প্রকাশিত: জুন ১৫, ২০২২, ০৯:৫২ পিএম তিন জেলায় পানিবন্দী লাখো মানুষ
ফাইল ফটো

কিছুদিন আগে সিলেটে হয়ে যাওয়া বন্যার ক্ষত এখনও ভালোভাবে শুকায়নি। স্বাভাবিক হয়নি মানুষের থাকার পরিবেশ। এরই মধ্যে আবারও আকস্মিক বন্যা দেখা দিয়েছে কুড়িগ্রাম, সুনামগঞ্জ ও শেরপুর জেলায়। আর তাতেই চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন এইসব জেলার লক্ষাধিক মানুষ।

গত কয়েকদিন ধরেই ভারতের চেরাপুঞ্জিতে চলছে অস্বাভাবিক বৃষ্টিপাত। এই বৃষ্টপাতের প্রভাবে এবং উজানের ঢলের কারণে বাড়ছে কুড়িগ্রাম, সুনামগঞ্জ ও শেরপুরের নদ-নদীর পানি। আর তাতেই ঘরবাড়ি ডুবে যাওয়ার পাশাপাশি সড়ক তলিয়ে যাওয়ায় যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন অনেক এলাকা।

সুনামগঞ্জের সুরমা ও শাখা নদী যাদুকাটার পানি। ফলে, নতুন করে পানিবন্দী হয়ে পড়েছে তাহেরপুর, বিশ্বম্ভরপুর ও দোয়ারাবাজার উপজেলার ২০ গ্রামের ৩০ হাজার মানুষ। জেলার বিভিন্ন অভ্যন্তরীণ সড়ক ডুবে যাওয়ায় জেলা সদরের সাথে বিচ্ছিন্ন রয়েছে তিন উপজেলার সড়ক যোগাযোগ।

পাহাড়ি ঢলের কারণে কুড়িগ্রামে তিনদিন ধরে বাড়ছে বিভিন্ন নদ নদীর পানি। প্লাবিত হচ্ছে নতুন নতুন এলাকা। পানিবন্দী হয়ে পড়েছে রৌমারি ও রাজিবপুরের ৫০ গ্রামের প্রায় অর্ধলক্ষ মানুষ। তলিয়েছে প্রায় ৬০০ হেক্টর জমির ফসল।

পানি উঠে যাওয়ায় উপজেলার ২১টি স্কুলে ক্লাস হচ্ছে না। দুর্গত এলাকায় বিশুদ্ধ পানি ও স্যানিটেশন ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে।

গত ৫ দিনের এই আকস্মিক বন্যায় শেরপুরে রাস্তা ভেঙ্গে যাওয়ায় দুর্ভোগে পড়েছেন ১০ গ্রামের অন্তত ১৫ হাজার মানুষ। ভেসে গেছে দেড় শতাধিক মাছের ঘের।

ভারতে বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকলে আগামী দু’দিনে বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতির আশঙ্কা করছে স্থানীয় পানি উন্নয়ন বোর্ড।

Side banner